গুলশান থানা–পুলিশ জানিয়েছে, দগ্ধ মাশরুরকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল ৯টার দিকে তাঁর মৃত্যু হয়। বিস্ফোরণের সময় তিনি ফ্ল্যাটে একা ছিলেন।

নিকেতনের ফ্ল্যাটটিতে মাশরুরের বড় বোন পরিবার নিয়ে থাকতেন। মাশরুরের বন্ধু আকাশ চক্রবর্তী প্রথম আলোকে বলেন, ‘মাশরুরের বোন পরিবার নিয়ে গ্রামের বাড়ি বেড়াতে গেছেন। সার্টিফিকেট নিতে গ্রাম থেকে বোনের বাড়ি এসেছিলেন মাশরুর। বিস্ফোরণের খবর শুনে হাসপাতালে এসেছি।’

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি মেডিকেল কলেজের মর্গে রাখা হয়েছে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন