default-image

রাজধানীতে চলন্ত একটি হিউম্যান হলারে কথা-কাটাকাটির জেরে এক যাত্রীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে চালকের সহকারীর বিরুদ্ধে। আজ বুধবার বিকেলে রাজধানীর রামপুরা উলন রোডে মক্কি মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই যাত্রীর নাম মো. ইউসুফ (৪০)। তাঁকে রামপুরার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সাংবাদিক জেসমিন জুঁই প্রথম আলোকে বলেন, তিনিও ওই হিউম্যান হলার ভিক্টর পরিবহনে ছিলেন। বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে যাত্রী ইউসুফ হাজীপাড়ায় নামতে চান। কিন্তু চালকের সহকারী তাঁকে নামতে দেননি। এ নিয়ে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে চালকের সহকারী উলনে মক্কি মসজিদের সামনে ইউসুফকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন। এতে তাঁর মাথা ফেটে যায়। তিনি (জেসমিন জুঁই) অন্য যাত্রীদের লোকটিকে বাঁচাতে আকুতি জানালেও তাঁরা তাতে সাড়া দেননি। এ সময় চালকের সহকারী নেমে ইউসুফকে মারধর করে তাঁর পরনের কাপড়চোপড় ছিঁড়ে ফেলেন। একপর্যায়ে পথচারীরা ভিক্টর পরিবহনের চালক ও তাঁর সহকারীকে আটক করেন। কিন্তু একদল যুবক এসে পথচারীদের কাছ থেকে চালক ও চালকের সহকারীকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

তদন্তকারী হাতিরঝিল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. দাউদ বলেন, ভিক্টর পরিবহনটি আটক করা গেলেও চালক ও চালকের সহকারী পালিয়ে গেছেন। আহত ইউসুফকে রামপুরার বেসরকারি সেন্ট্রাল হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কথা।

মন্তব্য পড়ুন 0