সভা শেষে গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বোর্ড সভায় কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়েছে। মেয়র মো. আতিকুল ইসলামের বরাত দিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা উত্তর সিটির কোনো স্থায়ী কর্মকর্তা বা কর্মচারী চাকরিরত অবস্থায় মারা গেলে বা গুরুতর আহত হয়ে স্থায়ীভাবে অক্ষম হলে তাঁর উত্তরাধিকারী আট লাখ টাকা আর্থিক সহায়তা পাবেন।

সভার অন্যান্য সিদ্ধান্তের মধ্যে রয়েছে সর্বসম্মত সিদ্ধান্তের আলোকে সিটি বন্ডের মাধ্যমে রাজধানীর ৮১, গুলশান অ্যাভিনিউ এবং ৬৪, কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউয়ে (বনানী কমিউনিটি সেন্টার) বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণ করা হবে। এ ছাড়া দেশে প্রথমবারের মতো বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যে রাজধানীর আমিনবাজার এলাকায় সংশ্লিষ্ট প্রকল্পে ৩০ একর ভূমি অধিগ্রহণের জন্য উত্তর সিটির অংশের অর্থছাড়ের বিষয়েও সর্বসম্মতিতে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

রাজউক অনুমোদিত নকশা মোতাবেক পার্ক ও খেলার মাঠ সংরক্ষণ না করলে ডেভেলপার কোম্পানির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও সভায় হুঁশিয়ারি দেন উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম।