default-image

শপিংমলে চাকরির জন্য নড়াইল থেকে ঢাকায় এসেছিলেন তরুণ তুর্কি মুন্না ওরফে সংগ্রাম (২০)। আজ বুধবার ভোরে গাবতলী নামেন। এরপর রিকশা করে মিরপুর যাচ্ছিলেন। ভোর পাঁচটার দিকে মিরপুর এক নম্বর ঈদগাহ মাঠের কাছে কয়েকজন দুর্বৃত্ত তাঁর রিকশা আটকায়। তাঁকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সংগ্রামের লাশ উদ্ধার করেছে। শাহ আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাশার মো. আসাদুজ্জামান এ তথ্য জানিয়েছেন।

পুলিশের ভাষ্য, নিহত সংগ্রামের শরীরে ছুরির আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে তাঁকে কে বা কারা খুন করেছে, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন

ওসি বলেন, ‘সংগ্রামের বাড়ি নড়াইলের সদর উপজেলায়। তিনি উচ্চমাধ্যমিক পাস।

শপিংমলে চাকরির জন্য ঢাকা এসেছিলেন তিনি। সকাল ১০টায় মিরপুর ১০ নম্বরে ও দুপুর ১২টায় পল্লবীতে চাকরির সাক্ষাৎকারের কথা ছিল তাঁর।’

শাহ আলী থানার ওসি আরও বলেন, ভোরে গাবতলী বাসস্ট্যান্ডে নেমে মিরপুরে বন্ধু রহমতউল্লাহর কাছে যাচ্ছিলেন। দুর্বৃত্তরা তাঁকে উপর্যুপরি ছুরি মেরে পালিয়ে যায়। তিনি ঘটনাস্থলে মারা যান। স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছে খবর পায় পুলিশ। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় রহমতউল্লাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

মন্তব্য পড়ুন 0