default-image

ক্যাম্পাসে নেতা-কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ করেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের একাংশ। অভিযোগ ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। তবে ছাত্রলীগ এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

ছাত্রদলের অভিযোগ, আজ মঙ্গলবার সকালে বিক্ষোভ মিছিল শেষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে বের হওয়ার সময় ছাত্রলীগ এ হামলা করে। তবে হামলায় কেউ আহত হননি।

ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা জানান, রাজধানীর পুরান ঢাকার বংশালের মোগলটুলির একটি স্কুলের নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলে পদপ্রত্যাশী নেতা-কর্মীরা ক্যাম্পাসে আজ বিক্ষোভ মিছিল করেন। এই বিক্ষোভ মিছিলে কাজী জিয়া, মাহবুব হোসেন, জাফর আহমেদসহ বেশ কিছু নেতা-কর্মী অংশ নেন।

বিজ্ঞাপন

শাখা ছাত্রদলের কমিটিতে পদপ্রত্যাশী সুমন সরদার প্রথম আলোকে বলেন, ‘সকালে মিছিল শেষে ক্যাম্পাস থেকে বের হওয়ার সময় পেছন দিকে থেকে ধর ধর বলে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকেন ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী। পরে আমরা প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিলে হামলাকারীরা সরে যান। ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকের সামনে দায়িত্বরত পুলিশের অনুরোধে পরে আমরা সেখান থেকেও চলে যাই।’

ছাত্রলীগের কারা হামলা করেছে, তা জানাতে চাইলে সুমন সরদার বলেন, ‘ছাত্রদলের ওপর সাধারণ শিক্ষার্থীরা হামলা করতে পারেন না। ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ একক আধিপত্য কায়েম করছে। তারাই আমাদের ওপর হামলা চালিয়েছে।’

বর্তমানে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের কোনো কমিটি নেই। অভিযোগ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সবশেষ সম্মেলন আয়োজন কমিটির আহ্বায়ক আশরাফুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমি বিষয়টি সম্পর্কে জানি না। করোনা সংক্রমণ রোধে ক্যাম্পাস বন্ধ। ছাত্রলীগের কোনো নেতা-কর্মীর এই সময় ক্যাম্পাসে কাজ নেই।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোস্তফা কামাল বলেন, ‘হামলার বিষয়ে কোনো অভিযোগ আসেনি। ছাত্রদলের পক্ষ থেকেও ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করার জন্যও কোনো অনুমতি নেওয়া হয়নি।’

শাখা ছাত্রদলের কমিটিতে পদপ্রত্যাশী আরেকটি অংশের নেতা-কর্মীরা সকালে পুরান ঢাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেন। মিছিলটি রায়সাহেব বাজার মোড় থেকে শুরু হয়ে আদালত এলাকার সামনে থেকে শাঁখারীবাজার মোড়ে গিয়ে শেষ হয়। এতে মোস্তাফিজুর রহমান, শফিউল শারাফাত, আব্দুস শুক্কুর প্রমুখ অংশ নেন।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের নামে মোগলটুলিতে ২০০৬ সালে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হয়। তখন নাম রাখা হয় ‘শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান উচ্চবিদ্যালয়’। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) পরিচালিত স্কুলটির নাম রেখেছিলেন তৎকালীন মেয়র সাদেক হোসেন খোকা। কিছুদিন আগে স্কুলটির নাম পরিবর্তন করা হয়। নতুন নাম রাখা হয় ‘মোগলটুলি উচ্চবিদ্যালয়’। দিন কয়েক আগে স্কুলের প্রধান ফটকে থাকা নতুন নামে কালি লেপটে দেন বিএনপির বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন