বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের জাতীয় হৃদ্‌রোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে তিন দিন ধরে তীব্র পানির সংকটের কারণে হাসপাতালে তালিকাভুক্ত অস্ত্রোপচার বন্ধ রয়েছে। হাসপাতালের একাধিক চিকিৎসক জানান, গত বুধ ও গতকাল শনিবার হাসপাতালে জরুরি কিছু অস্ত্রোপচার ও প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষা হয়েছে। তবে এই দুই দিন হাসপাতালে তালিকাভুক্ত কোনো অস্ত্রোপচার হয়নি। চিকিৎসকেরা জানান, প্রতিদিন হাসপাতালের পাঁচটি অস্ত্রোপচার কক্ষে তালিকাভুক্ত পাঁচটি বড় ধরনের অস্ত্রোপচার হয়। কিন্তু দুই দিন ধরে পানির অভাবে ওপেন হার্ট সার্জারি, জন্মগত রক্তনালির ত্রুটিসহ কয়েক ধরনের তালিকাভুক্ত অস্ত্রোপচার করা যায়নি।

প্যাথলজিক্যাল বিভাগ সূত্র জানায়, সরবরাহ লাইনে পানি না থাকলে প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষা করা যায় না। তারা জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠান (পঙ্গু হাসপাতাল) থেকে পানি এনে হাতে গোনা কয়েকটি জরুরি পরীক্ষার কাজ করেছেন। পানির সংকটের আগে ১ হাজার ২০০ শয্যার এই হাসপাতালে প্রতিদিন অন্তত ৬০০ রোগীর পরীক্ষা সম্পন্ন হতো।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কয়েকজন রোগী ও তাঁদের স্বজনেরা জানান, গত বৃহস্পতিবার ভোর থেকে হাসপাতালটিতে পানির সংকট শুরু হয়। পানি না থাকার বিষয়টি রোগীদের স্বজনেরা জানান হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টারদের। তাঁরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করেন।

গতকাল এ বিষয়ে জানতে চাইলে হৃদ্‌রোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক মীর জামাল উদ্দিন প্রথম আলোকে জানান, প্রতিদিন হাসপাতালে এক হাজার গ্যালন পানি লাগে। তবু বিভিন্নভাবে পানি সংগ্রহ করে হাসপাতালে কিছু অস্ত্রোপচার ও প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। গতকাল এ নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বৈঠক হয়েছে। আজ ওয়াসার লাইন থেকে সংযোগ নেওয়া হবে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন