বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এর আগে গত বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি আদালতে আবু ইউসুফের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা করেছিলেন আশিয়ানের কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম। আদালতের নির্দেশে ওই মামলার তদন্ত করেছিল পিবিআই।

সাইফুল ইসলাম ভুঁইয়া প্রথম আলোকে বলেন, নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস করার জন্য ২০১৩ সালে দক্ষিণখান এলাকা থেকে তাঁদের পাঁচ বিঘার একটি জমি কেনার চুক্তি করেছিলেন আবু ইউসুফ মো. আবদুল্লাহ। জমির দাম নির্ধারণ করা হয়েছিল ৫০ কোটি টাকা। কিন্তু তিনি ৩০ কোটি টাকা দেওয়ার পর জাল জালিয়াতির মাধ্যমে জমির কাগজ তৈরি করে নেন। এরপর আর কোনো টাকা পরিশোধ করেননি।
এ বিষয়ে বক্তব্যের জন্য নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে দেওয়া নম্বরে কয়েকবার ফোন করেও সাড়া পাওয়া যায়নি।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন