বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গ্রেপ্তার দুজন হলেন প্রধান আসামি দিনার ও তাঁর সহযোগী মেহেদী হাসান।
ডিবির তেজগাঁও বিভাগের সহকারী কমিশনার হাসান মুহাম্মদ মুহতারিম বলেন, কিশোরীকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না উল্লেখ করে গত সোমবার তার ভাই হাতিরঝিল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। পরে ছায়া তদন্ত শুরু করে গোয়েন্দা পুলিশ।

গতকাল রাত সাড়ে ১০টার দিকে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে কিশোরীকে নেওয়ার সময় খিলগাঁও তালতলা মার্কেট এলাকা থেকে তাঁকে উদ্ধার করা হয়। তাঁর দেওয়া তথ্য এবং প্রযুক্তির সহায়তায় তালতলা এলাকা থেকে মূল অভিযুক্ত ব্যক্তির সহযোগী মাহিকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর মাহির দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বনানী থেকে গ্রেপ্তার করা হয় দিনারকে।

ওই পুলিশ কর্মকর্তার ভাষ্য, গ্রেপ্তার হওয়া দুজন একটি সংঘবদ্ধ চক্রের সদস্য। তাঁরা কিশোরীদের নিশানা করে ফেসবুকে তাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব করেন। পরে টিকটক তারকা বানানোর প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে আটকে রেখে ধর্ষণ করেন। এরপর কিশোরীদের আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাকমেল করেন।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন