default-image

ঢাকার বনানীতে ট্রেনে কাটা পড়ে এক দম্পতির মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে বনানী সৈনিক ক্লাব ও মহাখালীর মাঝামাঝি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। মন্দিরে যাওয়ার কথা বলে বিকেলে তাঁরা বাসা থেকে বেরিয়েছিলেন।

নিহত ওই দম্পতি হলেন অজিত চৌধুরী (৬০) ও তাঁর স্ত্রী মনিষা চৌধুরী (৫০)। তাঁদের গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের সদরঘাট এলাকার দক্ষিণ নালাপাড়ায়। ঢাকায় তাঁরা সবুজবাগের মায়াকাননে ছেলের সঙ্গে থাকতেন।

বিমানবন্দর রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. মহিউদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, কমলাপুর থেকে ছেড়ে আসা ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেসের নিচে কাটা পড়ে তাঁদের মৃত্যু হয়। তাঁদের শরীর খণ্ডবিখণ্ড হয়ে গেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মাগরিবের নামাজে যাওয়ার আগে তাঁদের দুজনকে রেললাইনের পাশে বসে গল্প করতে দেখেছেন। নামাজ শেষে এসে লাশ পড়ে থাকতে দেখেন।

মহিউদ্দিন বলেন, দুর্ঘটনাস্থলে রেললাইনের দুই পাশে বেড়া দেওয়া রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মেট্রোরেলের নির্মাণকাজের জন্য এই বেড়া দেওয়া হয়েছে। এই এলাকা দিয়ে সাধারণ মানুষ যাতায়াতও করেন না। সম্ভবত দুই রেললাইন দিয়ে একই সময়ে দুদিক থেকে ট্রেন যাতায়াত করছিল। এই দম্পতি সরে যাওয়ার কোনো পথ না পেয়ে কাটা পড়েছেন। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী না থাকায় নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না কী হয়েছিল।

অজিত–মনিষা দম্পতির একমাত্র ছেলে অংকুর চৌধুরী একটি গ্লাস ফ্যাক্টরিতে কাজ করেন। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, তাঁর মা–বাবা নিয়মিতই বিকেলে বেড়াতে বের হতেন। কখনো মন্দিরে যেতেন, কখনো আশপাশের এলাকায় হাঁটতে বের হতেন।

মন্তব্য পড়ুন 0