বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা দিতে না পারলে তা উল্টো বিপদ ডেকে আনবে। তাই ডিজিটাল নিরাপত্তার বিষয়টিকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। এ জন্যই ২০১৮ সালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়েছে। তবে লক্ষ করা যাচ্ছে, কোনো কোনো ক্ষেত্রে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহার হচ্ছে। অপব্যবহার হওয়া উচিত নয়। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য, নিরাপত্তা হরণ করার জন্য নয়।

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী আরও বলেন, চলতি বছর দেশে পরীক্ষামূলকভাবে ফাইভ–জি সেবা চালু হবে। এরপর আগামী বছর থেকে তা সম্প্রাসারণ করা হবে।

সংলাপ অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন, তথ্য অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত প্রধান তথ্য কর্মকর্তা মো. শাহেনুর মিয়া, বিএসআরএফের সভাপতি তপন বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক মাসউদুল হক প্রমুখ।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন