ঢাকায় ওয়ানগালা উৎসবের এই ছবি গত বছরের
ঢাকায় ওয়ানগালা উৎসবের এই ছবি গত বছরেরছবি: ড্রিঞ্জা চাম্বুগং

করোনা পরিস্থিতির কারণে গারো সম্প্রদায়ের নবান্ন উৎসব ‘ওয়ানগালা’ সীমিত পরিসরে পালনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় গুলশানের কালাচাঁদপুর এলাকায় ওয়ানগালা উৎসব পালন করা হবে।

গারো জাতিগোষ্ঠীর বিশ্বাস, ‘মিশি সালজং’ বা শস্যদেবতার ওপর ভরসা রাখলে ফসলের ভালো ফলন হয়। এই দেবতাকে নতুন ফসলের জন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে এবং নতুন ফসল খাওয়ার অনুমতি চেয়েই গারো সম্প্রদায়ের লোকজন ওয়ানগালা (নবান্ন) উৎসব পালন করেন।

ঢাকা ওয়ানগালা উদ্‌যাপন কমিটির প্রধান (নকমা) শুভজিৎ সাংমা বলেন, করোনার কারণে এবারের ওয়ানগালায় উদ্‌যাপন কমিটির সদস্য, ওয়ানগালার কুশীলব ও আমন্ত্রিত অতিথি ছাড়া অন্যদের সশরীরে উপস্থিত হতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। তবে ওয়ানগালার নিজস্ব ফেসবুক পেজ ‘ঢাকা ওয়ানগালা উদ্‌যাপন কমিটি’ এবং গারো সম্প্রদায়ের নিজস্ব প্রচারমাধ্যমগুলোতে অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার (লাইভ) করা হবে।

বিজ্ঞাপন

ওয়ানগালা উৎসব শুরু হবে বিকেলে। বিকেল সাড়ে পাঁচটায় হবে রাক্কাসি আমুয়া (দেবতাপূজা), সা.সাত সো.আ (ধূপারতি), গোরে রওয়া ও গ্রিকা (নৃত্য)। এরপর আমন্ত্রিত অতিথিদের নিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা হবে। শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পরবর্তী বছরের জন্য নতুন নকমা (প্রধান) নির্বাচনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটবে।

উৎসব উদ্‌যাপন কমিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, ওয়ানগালায় ময়মনসিংহ-১ আসনের (হালুয়াঘাট, ধোবাউরা) সাংসদ জুয়েল আরেং, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব হেমন্ত হেনরী কুবি ও স্থানীয় ডিএনসিসি-১৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জাকির হোসেন প্রমুখ উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

মন্তব্য পড়ুন 0