default-image

পুরান ঢাকার আরমানিটোলার হাজী মুসা ম্যানশনের রাসায়নিক গুদামে আগুনে মৃত্যুর ঘটনার মামলায় দুই কেমিক্যাল ব্যবসায়ীকে তিন দিন করে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দিয়েছেন আদালত।

পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ মঙ্গলবার এ আদেশ দেন। প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) হেমায়েত উদ্দিন খান। রিমান্ডে নেওয়া দুই আসামি হলেন মোহাম্মদ মোস্তফা ও মোস্তাফিজুর রহমান।

পিপি হেমায়েত উদ্দিন বলেন, আরমানিটোলার আগুনে পাঁচজনের মৃত্যুর ঘটনার মামলায় দুই আসামিকে আদালতে হাজির করে ১০ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার আবেদন করে পুলিশ। উভয় পক্ষের শুনানি নিয়ে আদালত দুজনকে তিন দিন করে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন।

বিজ্ঞাপন

গত শুক্রবার ভোরে পুরান ঢাকার আরমানিটোলার হাজী মুসা ম্যানশনের নিচতলায় থাকা রাসায়নিকের দোকানে আগুন লাগে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত পাঁচজন মারা গেছেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ১৪ জন। আগুনের ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে হাজী মুসা ম্যানশনের মালিকসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। অবশ্য ভবনমালিক মোস্তাক আহমেদ পলাতক।

আসামি মোস্তাফিজুর রহমানকে বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম ও মোহাম্মদ মোস্তফাকে উত্তরা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মোস্তাফিজুর রহমানের দোকানের নাম মঈন অ্যান্ড ব্রাদার্স, মোহাম্মদ মোস্তফার দোকানের নাম মেসার্স আরএস এন্টারপ্রাইজ।

জিজ্ঞাসাবাদে মোস্তফা ও মোস্তাফিজুর বলছেন, পাঁচ-সাত বছর ধরে রাসায়নিকের ব্যবসা করেন তাঁরা। রাসায়নিক ও দাহ্য পদার্থ মজুতের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোনো অনুমতি নেননি।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন