বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিহত ব্যক্তির নাম আবদুল মালেক (৫২)। তিনি ডেমরার ধীৎপুর হাজী লাল মিয়া উচ্চবিদ্যালয়ের ইংরেজির শিক্ষক ছিলেন। এ ঘটনায় বাসচালককে আটক করা হয়েছে। বাসটিও জব্দ করা করা হয়। তবে চালকের নাম–পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশ জানায়, ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার এলাকার বাসস্ট্যান্ডে একটির পেছনে আরেকটি বাস দাঁড়িয়ে ছিল। আবদুল মালেক বাস দুটির মাঝখানের ফাঁকা জায়গা দিয়ে পার হচ্ছিলেন। এ সময় সামনে থাকা অসীম পরিবহনের বাসটি পেছনের দিকে সরিয়ে নিতে গেলে আবদুল মালেক পেছনের বাসের সঙ্গে চাপা খান। এতে গুরুতর আহত হন তিনি। তাঁকে রামপুরা ফরাজী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাত সাড়ে সাতটার দিকে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

ডেমরা থানার এসআই শাহজাহান প্রথম আলোকে বলেন, এ ঘটনায় বাসের চালককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

আবদুল মালেক পরিবার নিয়ে ডেমরার সারুলিয়া এলাকায় বসবাস করতেন। হাসপাতাল ও তাঁর পারিবারিক সূত্র জানায়, সকালে বাসা থেকে স্কুলে যাওয়ার পথে ওষুধ কিনে এক সাবেক ছাত্রের দোকানে রেখে যান। ক্লাস শেষে ওষুধ আনতে ওই দোকানে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন