বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া শান্তা বেগমের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শান্তার শরীরের ৪৮ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল।

গত বৃহস্পতিবার ভোররাত সাড়ে চারটার দিকে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার পশ্চিম মুক্তারপুর এলাকার একটি বাসায় গ্যাস থেকে বিস্ফোরণ ঘটলে একই পরিবারের চারজন দগ্ধ হন। ঘরে জমে থাকা গ্যাস থেকে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে জানিয়েছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন