default-image

দেশে ধর্ষণের মহোৎসব চলছে উল্লেখ করে ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা বলছেন, আইন ও বিচার দিয়ে এ রাষ্ট্রে ধর্ষণ ঠেকানো যাচ্ছে না। নারী ধর্ষণ বা নির্যাতনের ঘটনায় ভুক্তভোগীর দোষ খোঁজা (ভিকটিম ব্লেমিং) হয়, যা নারীর বিচার পাওয়ায় বাধা দেয়।

রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আজ সোমবার বিকেলে এক মানববন্ধনে এসব কথা বলেন শিক্ষার্থীরা। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর মৃত্যু ও শহীদ মিনারের বেদিতে কিশোরী ধর্ষণের পর মৃত্যুর ঘটনায় বিচারের দাবিতে এ মানববন্ধন করেছে প্রীতিলতা ব্রিগেড। এতে ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশসহ (ইউল্যাব) বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

মানববন্ধনে প্রীতিলতা ব্রিগেডের অন্যতম সংগঠক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী অর্নি আনজুম বলেন, দেশে ধর্ষণের এক মহোৎসব চলছে। এর বিচার রাষ্ট্রের করার কথা। তবে বিচার হয় না। যে রাষ্ট্রে ধর্ষকেরা জামিন পেয়ে ছাড়া পায়, সে রাষ্ট্রে নারীরা নিরাপদ থাকতে পারে না।

বিজ্ঞাপন

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শহীদ মিনারে কিশোরী হত্যার ঘটনায় দ্রুত দোষীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান শিক্ষার্থীরা। তাঁরা বলেন, বিচারহীনতা ও যৌনশিক্ষার অভাবে এ সমাজে ধর্ষণের ঘটনা বারবার ঘটছে। শিশু থেকে নারী—কেউই রেহাই পাচ্ছে না। প্রশাসনের সহযোগিতায় ধর্ষকেরা শাস্তির বদলে ছাড়া পেয়ে যায়।

মানববন্ধনে ইউল্যাব শিক্ষার্থী সাদাত মাহমুদ বলেন, এ সমাজে নারীর প্রতি সহিংসতার চিত্র সবখানে। উঁচু শ্রেণি থেকে খেটে খাওয়া শ্রেণি পর্যন্ত সব বয়সী নারী–শিশুরা ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। অথচ এসব ঘটনার দ্রুত বিচার হয় না। উল্টো ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার নারীকে দোষারোপ করা হয়।

default-image

মাস্টারমাইন্ড স্কুলের শিক্ষার্থী নেহা জামান বলেন, কলাবাগানে ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনায় বিচারের ক্ষেত্রে ঢিলেমি দেখা যাচ্ছে। এটিসহ সব ধর্ষণের ঘটনার দ্রুত বিচারের দাবি জানান তিনি।
মানববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি শাহবাগে গিয়ে শেষ হয়।

এর আগে একই স্থানে দেশে অব্যাহত ধর্ষণের ঘটনায় বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করে বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্র ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট।
এদিকে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ এক বিবৃতিতে ইউল্যাব শিক্ষার্থীর মৃত্যু, শহীদ মিনারের কিশোরীর মৃত্যুর ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে বলছে, দ্রুত গ্রেপ্তার, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে এসব ঘটনায় দোষীদের বিচার করতে হবে।

বিজ্ঞাপন
রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন