default-image

নারীদের এগিয়ে যেতে হলে আগে নিজেকে মানুষ ভাবতে হবে। নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস থাকাটাও জরুরি। নারী অগ্রযাত্রার পেছনে চালিকা শক্তি তাঁদের অদম্য ইচ্ছা। রাজধানীতে নারী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরা এসব কথা বলেন।

রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে পপ অফ কালার লিমিটেডের সৌজন্যে নারী দিবস উপলক্ষে ‘সর্বজয়া’ শিরোনামে অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হয়।  

অনুষ্ঠানে ব্যবসা, উদ্যোগ, স্বাস্থ্য, মানসিক স্বাস্থ্য, আধুনিক জীবনযাত্রার বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীদের অগ্রযাত্রার দিকগুলো বিশেষভাবে তুলে ধরা হয়। আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে ছিলেন প্রাইম ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট শায়লা আবেদিন, ল্যাব এইড গ্রুপের পরিচালক পারিসা শামীম, নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নোভা আহমেদ, চিকিৎসক ফারজানা রশিদ, আহমেদ গ্রুপের তাসনিয়া আতিকসহ আরও অনেকে।

বিজ্ঞাপন

নারী হিসেবে নিজের এগিয়ে যাওয়ার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করতে গিয়ে নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নোভা আহমেদ বলেন, ‘আমি আমার মায়ের থেকে অনুপ্রেরণা পেয়েছি অনেক। আজকে আমাদের মেয়েদের মধ্যে থেকে আরও অনেক প্রেরণা পেয়েছি। আমি জানি সামনে শুধু বাধা ভেঙে এগিয়ে যাওয়ার গল্প শুনব আর শিখব। সবার জন্য অনেক ভালোবাসা থাকল।’

পপ অফ কালারের কর্ণধার টিনকার জান্নাত মিম বলেন, ‘এটি শুধু মিলনমেলা নয় বরং এটা তাঁদের জীবনের একটা স্মরণীয় দিন হয়ে থাকবে। এ জন্য নানা আয়োজনের মাধ্যমে আমি এই অনুষ্ঠানটি সাজিয়েছি। যে কোনো প্রতিকূলতা, বাধাবিপত্তি কাটিয়ে আমরা মেয়েরা ঘুরে দাঁড়াতে পারি। তাই আমরাই সর্বজয়া।’

প্রাইম ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট শায়লা আবেদীন বলেন, ‘নিজেকে একজন মানুষ ভাবতে হবে সবার আগে। একজন মেয়ে বলে পুরুষের মতো কঠিন কাজ করতে পারবেন না, এসব চিন্তা ঝেড়ে ফেলতে হবে মাথা থেকে। নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস থাকা সবচেয়ে জরুরি।’

ল্যাব এইড গ্রুপের পরিচালক পারিসা শামীম তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘আমরা প্রতিনিয়ত স্বপ্ন দেখি। আমাদের দেশের স্বাস্থ্য খাতের দুর্ভোগ দেখলে কষ্ট পাই। আমি চাই একদিন আমাদের দেশে এমন একটা সময় আসবে, আমরা দেশেই সব রোগের চিকিৎসা করতে পারব। আমাদের কোনো অপারগতা থাকবে না। মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে গত ৫০ বছরে নারীর এই অগ্রযাত্রার পেছনে একমাত্র চালিকা শক্তি, আমাদের অদম্য ইচ্ছা। দেশ প্রধান হওয়া থেকে শুরু করে সমাজের সব স্তরে এখন নারীদের জয়জয়কার।’

আয়োজনটির কো-স্পনসর হিসেবে ছিল পিউরিটি, আহমেদ ফুড, ইন এসোসিয়েসান উইথ মটোরোলা, এম এন্ড এম কমিউনিকেশন। এ ছাড়া বেভারেজ পার্টনার হিসেবে ছিল ট্রান্সকম, হেলথ কেয়ার পার্টনার ল্যাব এইড, ডেলিভারি পার্টনার পেপার ফ্লাই এবং ইভেন্ট পার্টনার হিসেবে ছিল এলিগেন্ট ইভেন্ট সলিউশান।

বিজ্ঞাপন
রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন