default-image

বায়তুল মোকাররম এলাকায় ২৬ মার্চের ঘটনায় হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে হুকুমের আসামি করে রাজধানীর পল্টন থানায় মামলা হয়েছে।

গতকাল সোমবার রাতে মামলাটি হয়। মামলাটি করেন খন্দকার আরিফ-উজ-জামান। তিনি নিজেকে ব্যবসায়ী পরিচয় দিয়েছেন। তিনি মহানগর যুবলীগের উপদপ্তর সম্পাদক।

মামলায় এক নম্বর আসামি করা হয়েছে মামুনুল হককে। তিনি ছাড়া হেফাজতে ইসলামের আরও ১৬ নেতার নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এই ১৬ জনের মধ্যে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব, নায়েবে আমিরসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা রয়েছেন। এ ছাড়া দুই থেকে তিন হাজার ব্যক্তিকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে।

আসামিদের বিরুদ্ধে জনগণের শান্তিভঙ্গ, সম্পদ বিনষ্ট, অপরাধে উৎসাহ দেওয়া ও জীবন বিপন্নকারী অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবু বকর সিদ্দিক প্রথম আলোকে মামলা হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তাঁদের পরবর্তী কাজ কী হবে, জানতে চাইলে তিনি বলেন, তাঁরা এখন এজাহারের তদন্ত করবেন। আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করবেন।

এত দিন পর মামলা করার কারণ সম্পর্কে বাদী খন্দকার আরিফ-উজ-জামান প্রথম আলোকে বলেন, তিনি ও অন্য সাক্ষীরা ওই দিনের ঘটনায় আঘাত পেয়েছিলেন। তিনি এখন সেরে উঠেছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত আসামিদের নাম, ঠিকানা, ভিডিও ফুটেজসহ সাক্ষী-প্রমাণ সংগ্রহের জন্য মামলা করতে কিছুটা দেরি হয়েছে। মামলার এজাহারেও তিনি একই কথা লিখেছেন।

মামলার বাদী এজাহারে বলেছেন, আসামিরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা করে সংবিধান লঙ্ঘন, রাষ্ট্রীয় সম্পদ ধ্বংস, মসজিদ ভাঙচুর করে দেশকে অস্থিতিশীল, অকার্যকর ও মৌলবাদী রাষ্ট্রে পরিণত করার মাধ্যমে অবৈধ পথে সরকার উৎখাতের হীন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত আছেন।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন