default-image

শ্যামপুরের করিমুল্লাবাগের একটি তিনতলা বাড়ির ছাদে রাখা পানির ট্যাংক থেকে অজ্ঞাতনামা এক শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃতদেহটি ছেলেশিশুর। বয়স আনুমানিক তিন বছর। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে।

শ্যামপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মাহবুবুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, শিশুটির মৃতদেহ পাওয়া গেছে ৩৮/এ করিমুল্লাবাগের একটি তিনতলা বাসা থেকে। এই বাসার মালিক মো. নাসিরউদ্দীন একটি ইনস্যুরেন্স কোম্পানিতে চাকরি করেন। তিনি পুলিশকে জানান, তাঁদের বাসার ছাদে যে ট্যাংক আছে, সেখান থেকে পানি সব বাসায় যায়। ওই পানিতে গতকাল সোমবার থেকে দুর্গন্ধ পাচ্ছিলেন তাঁরা। তাঁরা প্রথমে মনে করেছিলেন ব্লিচিং পাউডারের গন্ধ। মঙ্গলবার গন্ধের তীব্রতা বাড়ায় তিনি ছাদে উঠে ট্যাংক দেখতে যান। তখন ভেতরে শিশুর লাশ দেখতে পান ও পুলিশকে খবর দেন।

বিজ্ঞাপন

শিশুর লাশটি পুরো পচে গেছে উল্লেখ করে পুলিশ জানায়, প্রাথমিকভাবে তারা ধারণা করছে, শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহটি ঢাকা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। শিশুটির পরিচয় শনাক্তে কয়েকটি দল কাজ করছে।
এদিকে শ্যামপুর থানার উপপরিদর্শক মীর মো মোজাহারুল ইসলাম বলেছেন, তাঁদের এলাকা থেকে কোনো শিশু নিখোঁজ হওয়ার খবর নেই। ফলে শিশুটি কে, কেন তাকে হত্যা করা হয়েছে সে সম্পর্কে তাঁরা এখনই কিছু বলতে পারছেন না।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন