পুরান ঢাকা ইমাম-মুসল্লি ঐক্য পরিষদের ব্যানারে সমাবেশ। রাজধানীর পশ্চিম লালবাগের সেকশন বেড়িবাঁধ এলাকা। ৬ নভেম্বর
পুরান ঢাকা ইমাম-মুসল্লি ঐক্য পরিষদের ব্যানারে সমাবেশ। রাজধানীর পশ্চিম লালবাগের সেকশন বেড়িবাঁধ এলাকা। ৬ নভেম্বর ছবি: সংগৃহীত

ফ্রান্সে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে অবমাননার প্রতিবাদে এবং দেশটির প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁর বিরুদ্ধে ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছে।

আজ শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর পশ্চিম লালবাগের সেকশন বেড়িবাঁধ এলাকায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমির মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, অন্যথায় বিশ্বব্যাপী যে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে, তা থামবে না।

হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে অবমাননা করে সারা বিশ্বের মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে ফ্রান্স আঘাত হেনেছে বলে উল্লেখ করেন মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী।

পুরান ঢাকা ইমাম-মুসল্লি ঐক্য পরিষদের ব্যানারে এই সমাবেশ হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন মাওলানা জুনাইদ কাসেমী। সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন ইসলামবাগ বড় মসজিদের খতিব মাঞ্জুরুল ইসলাম, লালবাগ মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মুফতি সাখাওয়াত হোসেন, মাওলানা তানভীর আহমদ, মুফতি রাফি বিন মুনির, মাওলানা সাইফুল্লাহ, মুফতি সুলতান মহিউদ্দীন প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

ফ্রান্সে মহানবীকে (সা.) অবমাননার প্রতিবাদে জাতীয় সংসদে নিন্দা প্রস্তাব গ্রহণ করতে সমাবেশ থেকে সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

কটূক্তির শাস্তি না হওয়ায় অবমাননা
এদিকে বিকেলে পুরানা পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় মহানবী (সা.)-এর মর্যাদা রক্ষায় ব্লাসফেমি আইন করার দাবি জানান ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব মাওলানা ইউনুছ আহমাদ। তিনি বলেন, আল্লাহ ও রাসুল (সা.)-এর বিরুদ্ধে কটূক্তির শাস্তির আইন না থাকায় বারবার অবমাননা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশেও অনেক নাস্তিক-মুরতাদ মহানবী (সা.)-এর বিরুদ্ধে কটূক্তি করে যাচ্ছে।

মন্তব্য পড়ুন 0