বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রাজ খান বলেন, তাঁরা ভবনের ছাদের এক পাশে তৈরি করা একটি ফ্ল্যাটে মেস করে থাকেন। সামনের অংশ ফাঁকা। সেখানে কাপড় শুকাতে দেওয়া হয়েছিল। আজ দুপুরে গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার কথা ছিল রিজনের। এজন্য কাপড় আনতে গিয়েছিল। সে সময় সে ছাদ থেকে নিচে পড়ে গুরুতর আহত হয়। তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় ফরাজী হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে বেলা সোয়া তিনটার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেক) পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। নিহতের বাড়ি জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার নড়াইল মাত্রাইল গ্রামে। ছয় ভাইয়ের মধ্যে তিনি সবার ছোট।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন