default-image

কর ফাঁকির মামলায় মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণ পিছিয়েছে। আগামী ১৫ মার্চ মামলার পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ঠিক করেছেন আদালত। ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩-এর ভারপ্রাপ্ত বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম আজ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন।
পুরান ঢাকার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতে সাঈদীকে কারাগার থেকে সকাল সাড়ে নয়টার দিকে হাজির করা হয়। রাষ্ট্রপক্ষের সরকারি কৌঁসুলি মো. রফিক উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, এই মামলার বাদী যুগ্ম কর কমিশনার মাসুমা খাতুন করোনায় আক্রান্ত, যে কারণে তিনি আদালতে আসতে পারেননি। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে সময় চেয়ে আদালতে তিনি আবেদন করেন। আদালত সেই আবেদন মঞ্জুর করে সাক্ষ্য গ্রহণ শুনানির নতুন দিন ঠিক করেন। মামলায় দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর বিরুদ্ধে ৫৬ লাখ ৪৬ হাজার ৮১২ টাকা কর ফাঁকির অভিযোগ আনা হয়।

মামলার কাগজপত্রের তথ্য অনুযায়ী, ২০১১ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর বিরুদ্ধে কর ফাঁকির মামলায় অভিযোগ গঠন করেন আদালত। কর ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর বিরুদ্ধে ২০১০ সালের ১৯ আগস্ট কর সার্কেল ৫১ কর অঞ্চলের তৎকালীন উপকর কমিশনার মাসুমা খাতুন বাদী হয়ে মামলা করেন। ২০১৮ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারিতে মুক্তিযুদ্ধকালে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে আমৃত্যু কারাদণ্ডের আদেশ দেন আপিল বিভাগ। ২০১০ সালের ২৯ জুন সাঈদী গ্রেপ্তার হন ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার অভিযোগে। পরে ২ আগস্ট মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

বিজ্ঞাপন
রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন