বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোস্তফা কামাল প্রথম আলোকে এ তথ্য জানান। প্রক্টর বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের সঙ্গে যেন বাস শ্রমিকদের কোনো ভুল–বোঝাবুঝি বা অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, তা নিশ্চিত করতে আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। শিক্ষার্থীরা যেন তাদের আইডি কার্ড প্রদর্শন করে হাফ পাস (অর্ধেক ভাড়া) সুবিধা পেতে পারে, সে জন্য আমরা অনুরোধ করব। অতীতেও শিক্ষার্থীরা এই সুবিধা পেয়েছে।’

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার পাশেই সরকারি কবি নজরুল কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, মুসলিম সরকারি উচ্চবিদ্যালয়, ঢাকা কলেজিয়েট স্কুল, ইসলামিয়া সরকারি উচ্চবিদ্যালয়, বাংলাবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়, কে এল জুবিলী স্কুল ও কলেজসহ অসংখ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অবস্থিত। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়মিত রাজধানীর নানা প্রান্ত থেকে পুরান ঢাকা আসতে হয় শিক্ষার্থীদের। সম্প্রতি করোনা সংক্রমণ রোধে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের পর আবার খোলা হলে গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস (অর্ধেক ভাড়া) নিচ্ছেন না গণপরিবহনের শ্রমিকেরা। এ নিয়ে প্রায় দিনই হয়রানির শিকার হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নাহিদ ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় বাসস্ট্যান্ড এলাকায় কোনো শিক্ষার্থী যেন হয়রানির শিকার না হন, সে বিষয়টি আমরা দেখছি। কেউ হয়রানির শিকার হয়ে আমাদের অভিযোগ জানালে আমরা দ্রুত ব্যবস্থা নিচ্ছি। যেহেতু পুরান ঢাকার মধ্যে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় বড় প্রতিষ্ঠান। তাই তাঁরা উদ্যোগ নিয়ে অন্য প্রতিষ্ঠানের প্রধানদেরও আমন্ত্রণ জানালে সেসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরও উপকৃত হবেন।’

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন