বাসা থেকে বর্জ্য নিতে ১০০ টাকার বেশি নয়: ডিএসসিসি

বাসাবাড়ি থেকে বর্জ্য সংগ্রহের জন্য মাসে ১০০ টাকার বেশি আদায় করা যাবে না, এমন নির্দেশনা দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। তিনি বলেছেন, নতুন আঙ্গিকে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য নির্দিষ্ট হারে তাঁরা মাসিক চার্জ নির্ধারণ করে দিয়েছেন। কোথাও এই হারে ব্যত্যয় করা যাবে না।
সোমবার দুপুরে নগর ভবনের মেয়র হানিফ অডিটোরিয়ামে প্রাথমিক বর্জ্য সেবা সংগ্রহকারী প্রতিষ্ঠানের (পিসিএসপি) সঙ্গে মুক্ত আলোচনায় অংশ নিয়ে মেয়র এই নির্দেশনা দেন।

বর্তমানে ডিএসসিসির এলাকায় প্রতিটি ওয়ার্ডে একটি প্রতিষ্ঠান বর্জ্য সংগ্রহের কাজ করছে। আগে একটি ওয়ার্ডে একাধিক প্রতিষ্ঠান কাজটি করত। তবে বর্তমানে যেসব প্রতিষ্ঠান বাসাবাড়ি থেকে বর্জ্য সংগ্রহের কাজ করছে, তাদের অনেকের বিরুদ্ধেও করপোরেশন নির্ধারিত চার্জের চেয়ে বেশি টাকা আদায়ের অভিযোগ আছে।

মুক্ত আলোচনায় মেয়র তাপস বলেন, ‘ঢাকাবাসীর একটি বড় অংশ এখনো উন্মুক্ত স্থানে বর্জ্য ফেলায় অভ্যস্ত। কিন্তু ঢাকা একটি রাজধানী। রাজধানীর শহর হিসেবে এটার মর্যাদা ও সম্মানকে অনুধাবন করতে হবে। তার জন্য এই নিয়মাবলি (নতুন আঙ্গিকে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা) যথাযথভাবে অনুসরণ করতে হবে। নতুন আঙ্গিকে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সূচি আমরা অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে নির্ধারণ করেছি। শুরুতে অনেকেই এই সূচি যথাযথভাবে পরিপালন করতে চাইবে না। কিন্তু আপনাদের যথাযথভাবে আমাদের এই সূচি পালন করতে হবে এবং জনগণকেও সে সূচি পালন করতে উদ্বুদ্ধ করতে হবে ও পালন করাতে হবে।’

বিজ্ঞাপন

আগে দিনরাত ২৪ ঘণ্টাই সড়কে বা করপোরেশনের নির্ধারিত স্থানে বর্জ্য ফেলা হতো। নতুন মেয়রের ঘোষণা অনুযায়ী আগস্ট মাস থেকে এই নিয়ম পরিবর্তন করা হয়েছে। নতুন নিয়ম অনুযায়ী, সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টার মধ্যে বাসাবাড়ি থেকে বর্জ্য সংগ্রহ করতে হচ্ছে। এসব বর্জ্য নির্ধারিত কনটেইনার বা অন্তর্বর্তীকালীন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কেন্দ্রে রাখা হয়। রাত ১০টা থেকে ভোর ৬টার মধ্যেই এসব বর্জ্য মাতুয়াইল ল্যান্ডফিলে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশনা আছে। এ ছাড়া নতুন নিয়ম অনুযায়ী রাত ৯টা থেকে ভোর ৫টার মধ্যে পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা রাস্তা ঝাড়ু দেওয়ার কাজ করছেন।

এ প্রসঙ্গে পিসিএসপিদের বর্ধিত হারে বিনিয়োগ ও জনবল নিয়োগ করার নির্দেশনা দিয়ে ডিএসসিসির মেয়র বলেন, ‘কোথাও কোথাও এখনো দিনের বেলায় বর্জ্য সংগ্রহ ও পরিষ্কার করা হচ্ছে। এর মানে হলো, আপনারা এ কাজে এখনো যথাযথভাবে বিনিয়োগ করেননি। আমাদের সূচির বাইরে কিছুই করা যাবে না। তাই এই কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পাদন করার জন্য আপনারা আরও বেশি জনবল নিয়োগ করুন এবং বেশি বিনিয়োগ করুন। তাহলে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি আপনারাও অধিক লাভবান হবেন।’

ডিএসসিসির প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমোডর মো. বদরুল আমিনের সঞ্চালনায় সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম আমিন উল্লাহ নূরী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

মন্তব্য পড়ুন 0