default-image

রাজধানী ঢাকায় বাসে আগুন ও নাশকতার পৃথক চারটি মামলায় বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের ২০ জন নেতা-কর্মীকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডের অনুমতি দিয়েছেন আদালত। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ শনিবার এই আদেশ দেন। গতকাল শুক্রবারও বাসে আগুন ও নাশকতার মামলায় বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের ২৮ জন নেতা-কর্মীকে রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।

বংশাল থানার বাসে আগুন দেওয়ার মামলায় ১১ জনকে ২ দিন করে এবং সূত্রাপুর থানার নাশকতার মামলায় ৪ জনকে ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এ ছাড়া দক্ষিণখান থানার বিস্ফোরক আইনের মামলায় চারজনের দুই দিন করে এবং ভাটারা থানার নাশকতার মামলায় একজনের তিন দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

বংশাল থানার মামলায় রিমান্ডপ্রাপ্ত ১১ আসামি হলেন ৩১ নম্বর ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি সৈয়দ আহম্মেদ ফারুক (৪০), ৩১ নম্বর ওয়ার্ড যুবদলের সাবেক প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ তাজু (৩৮), ৩৩ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির কর্মী মোহাম্মদ রকি (৩০), বিএনপির কর্মী মো. রাসেল (৩৮), আনোয়ার হোসেন (৪০), সাইফুল ইসলাম (২৭), ফরহাদ হোসেন (৩১), মোহাম্মদ জনি (৩১), শাহরিয়ার ফাহিম (১৯), শহিদুল্লাহ রানা (৩৬) ও জুয়েল আহম্মেদ (৪২)।

সূত্রাপুর থানার মামলায় রিমান্ডপ্রাপ্ত চার আসামি হলেন ছাত্রদলের সদস্য বিপ্লব আহমেদ (২৭), মো. শাহীন (২৬), সাদ্দাম (৩৪) ও ৩৭ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রদলের সদস্যসচিব তরিকুল ইসলাম (৩০)।

দক্ষিণখান থানার মামলায় রিমান্ডপ্রাপ্ত চার আসামি হলেন ৫০ নম্বর ওয়ার্ড যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক মো. জামাল হোসেন (৩৫), ৫০ নম্বর ওয়ার্ড যুবদলের সহসম্পাদক মো. মিজান (৩৯), ওয়ার্ড যুবদলের কর্মী মো. নাজমুল ইসলাম (২৮) ও নাইমুর রহমান (২৩)।

default-image

ভাটারা থানার মামলায় রিমান্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন নাজিম উদ্দিন খন্দকার (৩৫)।
মামলার কাগজপত্র ও থানা-পুলিশ সূত্র বলছে, রাজধানীর নয়াবাজার এলাকায় বাসে আগুন দেওয়ার মামলায় বংশাল থানা-পুলিশ মোট ১৩ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করে। এর মধ্যে ৩১ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি আবদুল কাইয়ুম (৬৫) এবং সাবেক কাউন্সিলর ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহসভাপতি রফিকুল ইসলামের (৬১) রিমান্ড আবেদন করেনি পুলিশ। তাঁদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বংশাল থানার মামলায় গ্রেপ্তার বাকি ১১ জনকে আদালতে হাজির করে ৭ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ।

এ ছাড়া সূত্রাপুর থানায় বাস ভাঙচুর ও ককটেল বিস্ফোরণের মামলায় গ্রেপ্তার চারজনের সাত দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ।

দক্ষিণখান থানা-এলাকায় অগ্নিসংযোগ ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার মামলায় গ্রেপ্তার চার আসামির সাত দিন এবং ভাটারা থানা এলাকায় ককটেল বিস্ফোরণের মামলায় গ্রেপ্তার এক আসামির পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ।

এর আগে গতকাল বাসে আগুন ও নাশকতার অন্তত ১৫টি মামলায় বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের ২৮ জন নেতা-কর্মীকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া আরও ৯ জন নেতা-কর্মীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় গত বৃহস্পতিবার বাসে আগুন ও নাশকতার ঘটনায় অন্তত ১৫টি মামলা হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0