default-image

সুনির্দিষ্ট আইন বা বিধি প্রণয়ন না হওয়া পর্যন্ত অনুসন্ধান ও তদন্ত পর্যায়ে কাউকে বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা দিতে সংশ্লিষ্ট আদালতের অনুমতি নিতে হবে বলে রায় দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। এই রায় স্থগিত চেয়ে আবেদন করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আজ সোমবার চেম্বার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ওই আবেদনের ওপর শুনানির জন্য ২৮ মার্চ দিন রেখেছেন।

বিদেশ যেতে কাউকে বিরত রাখতে যথাযথ আইন বা বিধি প্রণয়নের এখনই সময় উল্লেখ করে ১৬ মার্চ হাইকোর্ট এক রায়ে বলেন, এ বিষয়ে যতক্ষণ পর্যন্ত সুনির্দিষ্ট আইন বা বিধি প্রণয়ন না হচ্ছে অনুসন্ধান ও তদন্ত পর্যায়ে কাউকে বিদেশ যেতে বিরত করতে হলে সংশ্লিষ্ট আদালত থেকে অনুমতি নিতে হবে।

বিজ্ঞাপন

এই রায়ের বিরুদ্ধে দুদক আবেদন করে, যা আজ শুনানির জন্য কার্যতালিকায় ওঠে। আদালতে দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। অপরপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট অন রেকর্ড হাসিনা আক্তার।

পরে খুরশীদ আলম খান প্রথম আলোকে বলেন, হাইকোর্টের রায় স্থগিত চেয়ে গতকাল রোববার আবেদনটি করা হয়। সোমবার শুনানির জন্য উঠলে অপরপক্ষ সময়ের আরজি জানায়। আদালত ২৮ মার্চ শুনানির জন্য দিন রেখেছেন। ওই সময় পর্যন্ত নরসিংদীর আতাউর রহমান দেশত্যাগ করবেন না বলে তাঁর আইনজীবী আদালতে অঙ্গীকার দিয়েছেন।

বিদেশ যেতে বাধা পেয়ে এর বৈধতা নিয়ে মো. আতাউর রহমানের করা রিটের চূড়ান্ত শুনানি শেষে হাইকোর্ট পর্যবেক্ষণসহ ওই রায় দেন। জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধান চলমান থাকার কথা উল্লেখ করে গত বছরের ২০ ডিসেম্বর দুদক এক চিঠিতে আতাউর যাতে দেশত্যাগ করতে না পারেন, সে জন্য ব্যবস্থা নিতে ইমিগ্রেশন পুলিশ সুপার (এয়ারপোর্ট) বরাবর চিঠি দেয়। এই চিঠির বৈধতা নিয়ে আতাউর রিটটি করেন।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন