default-image

ঢাকায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে একটি উড়োজাহাজ থেকে এক কেজির বেশি ওজনের সোনা উদ্ধার করেছেন শুল্ক কর্মকর্তারা। আজ শুক্রবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি উড়োজাহাজে যাত্রীর আসনের হাতলের ভেতর থেকে এই সোনা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শুল্ক বিভাগ সূত্র জানায়, গোপন খবরের ভিত্তিতে শুল্ক কর্মকর্তারা জানতে পারেন দুবাই থেকে ঢাকাগামী বিমান বাংলাদেশের একটি উড়োজাহাজে (ফ্লাইট বিজি ৫০৪৬) সোনার চালান আসতে পারে। দুপুরে ওই উড়োজাহাজ শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌঁছায়। এ সময় শুল্ক কর্মকর্তারা বিমানবন্দরের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়ে নজরদারি করতে থাকেন। একপর্যায়ে তাঁরা বিমানের ভেতরে থাকা এয়ারক্রাফট টেকনিশিয়ান হেলপার ঝন্টু চন্দ্র বর্মণের আচরণ সন্দেহজনক হওয়ায় তাঁকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। কিন্তু ঝন্টু শুরুতে তাঁর সঙ্গে সোনা থাকার কথা অস্বীকার করেন। পরে জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে তিনি যাত্রী বসার আসনের হাতলে বিশেষ কায়দায় সোনা থাকার কথা স্বীকার করেন। ঝন্টু বর্মণের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২১সি আসনের হাতলের ভেতর থেকে বিশেষ কায়দায় লুকানো অবস্থায় এক কেজি ১৬০ গ্রাম ওজনের ১০টি সোনার বার উদ্ধার করেন শুল্ক কর্মকর্তারা।

বিজ্ঞাপন

ঢাকা কাস্টম হাউসের উপকমিশনার মারুফুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, আটক ঝন্টুর বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানায় মামলা হয়েছে। ওই মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। উদ্ধার করা সোনার দাম প্রায় ৭০ লাখ টাকা। এই সোনা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দেওয়া হয়েছে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন