বিজ্ঞাপন

পুলিশ সূত্র জানায়, মিরপুরের শিয়ালবাড়ি এলাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র ছিলেন মাহমুদুল। তিনি মিরপুর ২ নম্বর সেকশনের জি ব্লকের ১ নম্বর সড়কের ১১ নম্বর বাড়ির দোতলায় মাহমুদুলসহ চারজন মেস করে থাকতেন। তাঁর সঙ্গে থাকা তিনজন ঈদের ছুটিতে বাড়িতে গেলেও তিনি একা বাসায় ছিলেন। আজ সকালে তাঁর এক রুমমেট এসে চাবি দিয়ে দরজা খুলে ভেতরে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় দড়ি প্যাঁচানো অবস্থায় ঝুলতে দেখেন।

এ সময় মিরপুর থানায় জানালে পুলিশ এসে তাঁর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। অন্তত তিন দিন আগে তাঁর মৃত্যু হয় বলে ধারণা পুলিশের। মাহমুদুলের বাড়ি মাগুরা সদর উপজেলায়। তাঁর বাবার নাম এ কে এম রেজাউল হক। বিকেলে মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন