default-image

দিন সাতেক আগে দেশের একটি অন্যতম শিল্পগোষ্ঠীতে যোগ দিয়েছিলেন আফসীন আহমেদ (২৭)। আজ সোমবার বিকেলে বনানীতে ওই ভবনের নিচের রাস্তায় তাঁর মৃতদেহ পাওয়া যায়। বনানী থানা-পুলিশ এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

আফসীনের এক স্বজন জানান, নানা কারণে তিনি বিষণ্নতায় ভুগছিলেন।

বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আজম মিঞা প্রথম আলোকে বলেন, বিকেল চারটার দিকে তাঁরা একজন নারীকে রাস্তায় মৃত পড়ে থাকার খবর পান। ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তিনি ভবনের ১৪ তলায় কাজ করতেন। সেখান থেকে ভিডিও ফুটেজে তাঁকে খুব স্বাভাবিকভাবে নেমে যেতে দেখা যায়। অফিসের আরও ফুটেজ তাঁদের হাতে রয়েছে। আগামীকাল মঙ্গলবার তাঁরা ফুটেজগুলো আবারও দেখবেন।

বিজ্ঞাপন

প্রাথমিকভাবে পুলিশ ধারণা করছেন, আফসীন আহমেদ আত্মহত্যা করেছেন। থানা থেকে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। বনানী থানায় সন্ধ্যার দিকে তাঁর স্বামী গেছেন বলেও জানান ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)।

এদিকে আফসীনের একজন স্বজন প্রথম আলোকে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট (আইবিএ) থেকে স্নাতক করেছিলেন আফসীন। তুখোড় ছাত্রী ছিলেন। আফসীন লিখতেন চমৎকার। গিটার বাজিয়ে গানও গাইতেন। নানা কারণে তিনি বিষণ্নতায় ভুগছিলেন। চার বছর আগে বাবাকে হারিয়েছেন। মা ক্যানসারে ভুগছেন। ছোট একটা ভাই আছে আফসীনের। দিন তিনেক আগে তাঁর মা তাঁকে দেখে গেছেন।

এ ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। আফসীনদের বাড়ি নোয়াখালীর চাটখিল।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন