default-image

বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে পুনর্দখল ঠেকাতে উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় শ্যামবাজার থেকে অভিযান শুরু হয়েছে। ফরাসগঞ্জ এলাকার ছয়তলা ভবনের অবৈধ অংশ ভাঙার কাজের সময় ভাড়াটেদের সঙ্গে কর্মকর্তাদের বাগ্‌বিতণ্ডা চলে।
আজ সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে অন্তত ৩০টি টিনের তৈরি স্থাপনা ভাঙা হয়েছে।

অভিযানে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিআইডব্লিউটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুব জামিল। এ ছাড়া ঢাকা নদীবন্দর নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা গুলজার আলী, বিআইডব্লিউটিএর উপপরিচালক এহসানুল হক সহকারী পরিচালক রেজাউল করিম ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা অভিযানে রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

সরেজমিনে দেখা যায়, ফরাসগঞ্জ এলাকায় ছয়তলা ভবনটির অবৈধ অংশ ভাঙা শুরু হলে ভবনে থাকা ভাড়াটেরা কর্মকর্তাদের ওপর চড়াও হন। তাঁরা জানান, এই ভবনের মালিক উচ্ছেদের বিষয়টি তাঁদের জানাননি। ভাড়াটেরা বলেন, ভবনে তাঁদের গুরুত্বপূর্ণ মালামাল আছে। অভিযানের কারণে এসব ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। উত্তরে কর্মকর্তারা বলেন, বাড়ির মালিককে আগে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থলে বাড়ির মালিককে দেখা যায়নি।

ঢাকার চারপাশের নদ–নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত বড় পরিসরে অভিযান চালানো হয়েছিল। এরপর থেকে বিরতি দিয়ে উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছে বিআইডব্লিউটিএ। এরই অংশ হিসেবে আজ অভিযান চালানো হচ্ছে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন