পুলিশ জানায়, ইসমাইলের মা পল্লবী এলাকায় তাঁর বোনের ফ্ল্যাট দেখাশোনা করেন। গতকাল সকালে ফ্ল্যাটের তালা খুলতে গেলে তাঁর ছেলে ইসমাইল হোসেন এবং মেয়ে উম্মে সালমা সুলতানা দিশা তাঁকে মারধর করেন। এ সময় তাঁকে দ্বিতীয় তলার সিঁড়ি দিয়ে নিচে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করলে তিনি সিঁড়ির রেলিং ধরে আত্মরক্ষা করেন।

তখন সালমা তাঁর মায়ের গলা থেকে স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেন। আশপাশের লোকজন চিৎকার শুনে তাঁকে উদ্ধার করে।

সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে ছেলে ইসমাইল ছাড়াও দুই মেয়ে উম্মে সালমা সুলতানা দিশা ও তাসলিমা হোসেন এবং তাসলিমার স্বামী সাঈদুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তিনি।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিরপুর বিভাগের উপকমিশনার আ স ম মাহতাব আলী প্রথম আলোকে বলেন, গ্রেপ্তারের পর মায়ের সঙ্গে ফ্ল্যাট সংক্রান্ত বিষয়ে বিরোধের কথা স্বীকার করেছেন ইসমাইল। এজাহারভুক্ত অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।