বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নাবিলের চাচা মেজবাহ জানান, নাবিল বাসার পাশের একটি বিশেষায়িত স্কুলে পড়ে। সে নাম–ঠিকানা বলতে পারে। তবে সব সময় কথা বলে না। তারা দুই ভাই। বড় ভাই ফৌজদারহাট ক্যাডেটে উচ্চমাধ্যমিকে পড়ে।

নাবিলের বাবা মাহমুদ আলম সাধারণ বীমা করপোরেশন ব্যবস্থাপক। মা রওশনারা আক্তার সংসার সামলান। ছেলেকে হারিয়ে রওশনারা এখন পাগলপ্রায়। যে জায়গা থেকে ছেলেকে হারিয়েছেন, বারবার সেখানে ছুটে যাচ্ছেন। ছেলের স্কুলে যাচ্ছেন, যদি ছেলে ফিরে আসে। অন্ধকারকে খুব ভয় পায় নাবিল। বেশি খিদে লাগলে খিঁচুনি ওঠে তার। ছেলে কোথায় আছে, কেমন আছে—এমন শত আতঙ্কে প্রতিটি মুহূর্ত পার করছেন রওশনারা।

নাবিলের উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি। গায়ের রং ফরসা। মুখমণ্ডল গোলাকার। নিখোঁজ হওয়ার সময় তার পরনে ছিল চকলেট রঙের প্যান্ট ও সাদা গেঞ্জি। কেউ এই কিশোরের খোঁজ পেলে বাড্ডা থানায় যোগাযোগ করার অনুরোধ জানিয়েছে নাবিলের পরিবার।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন