default-image

মেয়ের জন্য জুতা কিনতে শনির আখড়ায় যাচ্ছিলেন মরিয়ম বেগম (৪৮)। পথে যাত্রাবাড়ীর মাতুয়াইলে রাস্তা পার হচ্ছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন মেয়ে জান্নাত আক্তার। হঠাৎ বেপরোয়া গতির একটি বাস এসে মরিয়মকে ধাক্কা দেয়। রাস্তায় ছিটকে পড়ে তিনি মারাত্মক আহত হন। রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। রাজধানীতে আজ বুধবার দুপুরে মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটে।


মরিয়মের পারিবারিক সূত্র জানায়, মরিয়ম সপরিবার মাতুয়াইলের মুসলিমনগরে থাকতেন। তাঁর স্বামী নূর ইসলাম কাভার্ড ভ্যানচালক। মরিয়মের গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুর সদরের ভবানীপুর গ্রামে।

বিজ্ঞাপন

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মরিয়মের মেয়ে জান্নাত আক্তার হাসপাতালে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, আজ দুপুরে মাতুয়াইলে মা ও শিশু হাসপাতালের সামনে রাস্তা পার হচ্ছিলেন তাঁরা। হঠাৎ মেঘালয় পরিবহনের একটি বাস তাঁর মাকে ধাক্কা দেয়। তাঁর চোখের সামনেই রাস্তায় রক্তাক্ত হয়ে পড়ে থাকেন মা (মরিয়ম)। আশপাশের লোকজনের সহায়তায় মাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুপুর পৌনে ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেন তিনি। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, পথেই তাঁর মায়ের মৃত্যু হয়েছে।


যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, চালক মোস্তফা মিয়াসহ মেঘালয় পরিবহনের বাসটি আটক করা হয়েছে।

মন্তব্য পড়ুন 0