default-image

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে কোনো ধরনের নাশকতার আশঙ্কা নেই বলে জানিয়েছেন র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনের বিরোধিতা করে সভা-সমাবেশ না করার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

রাজধানীর কুর্মিটোলায় (উত্তরা) র‍্যাব সদর দপ্তরে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আশিক বিল্লাহ এ অনুরোধ জানান। এ সময় র‍্যাবের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মোদির আগমনের বিরোধিতা করে সভা-সমাবেশ প্রসঙ্গে আশিক বিল্লাহ বলেন, র‍্যাব এসব তৎপরতা কঠোরভাবে মনিটর করছে। এ সময় দেশের ভাবমূর্তির স্বার্থে এসব থেকে বিরত থাকার জন্য সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করেন তিনি।

মুজিব বর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ভিভিআইপি অতিথিদের আগমনকে ঘিরে কোনো ধরনের নাশকতার আশঙ্কা নেই উল্লেখ করে আশিক বিল্লাহ জানান, বিভিন্ন দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি বাংলাদেশ সফর করছেন। অতিথিদের আগমনের যে সূচি রয়েছে, সে অনুযায়ী র‍্যাব অত্যন্ত নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছে। অতিথিদের আগমন সূচিতে যেসব স্থান রয়েছে (ঢাকার ভেতরে ও বাইরে) সেখানে র‍্যাব তিন ধরনের নিরাপত্তামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। তিনি আরও বলেন, স্থানগুলোতে র‍্যাব সদস্যদের দৃশ্যমান উপস্থিতি, গোয়েন্দা নজরদারি ও সাইবার মনিটরিং করছে।

বিজ্ঞাপন

বিগত দিনে র‍্যাব যেভাবে পেশাদারি ও দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছে, আগামী দিনগুলোতেও র‍্যাব তার স্বাক্ষর রেখে যাবে।

র‍্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘আগত ভিভিআইপি অতিথিরা ঢাকা ও ঢাকার বাইরে যেসব স্থানে যাবেন, সেখানে তিন স্তরের নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাইবার শাখা সক্রিয় রয়েছে। একই সঙ্গে র‍্যাব ও সরকারের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা বেশ কয়েক দিন ধরে কাজ করছে। নিরাপত্তার স্বার্থে তারা বিভিন্ন দিক পর্যবেক্ষণ করছে।’

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন