যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাযহারুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, আশরাফুর রহমানের গ্রামের বাড়ি বরিশালের গৌরনদীর উপজেলার মহিষা গ্রামে। তিনি পুলিশ ও র‌্যাবের সোর্স হিসেবে কাজ করতেন। তাঁকে ছুরিকাঘাত করেছেন কসাই শ্যামল। তাঁকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

আশরাফুর রহমান পরিবার নিয়ে বিবির বাগিচা এলাকায় থাকতেন। তাঁর স্ত্রী হোসনে আরা বেগম প্রথম আলোকে বলেন, বেলা দুইটার পর তাঁর স্বামী বাসা থেকে বের হন। বিকেল পাঁচটায় খবর পান, যাত্রাবাড়ীর মাছের আড়তে তাঁর স্বামীকে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা ছুরিকাঘাত করেছেন। পরে গুরুতর আহত আশরাফুরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আশরাফুর মারা যান।

প্রত্যক্ষদর্শী লোকমান হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, যখন আশরাফুর রহমানকে ছুরিকাঘাত করা হয়, তখন স্থানীয় শ্যামল নামের এক ব্যক্তির হাতে তিনি ছুরি দেখেছেন।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন