বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পারভেজ মল্লিককে হাসপাতালে নেন সাইদুর রহমান নামের তাঁর এক সহযাত্রী। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘আজ সকালে গাজীপুরের চৌরাস্তা থেকে বলাকা পরিবহনের বাসে সায়েদাবাদে যাচ্ছিলাম। পুলিশ সদস্য বসেছিলেন আমার সামনের আসনে।

খিলক্ষেতে তাঁকে পানি খেতে দেখেছি। বাস যখন বনানীতে পৌঁছায়, তখন দেখি তিনি অচেতন হয়ে আছেন। বাসটি রাজারবাগ পৌঁছালে তাঁকে নামিয়ে সেখানে পুলিশ হাসপাতালে নিয়ে যাই।’

টঙ্গী পূর্ব থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ওয়াহিদ প্রথম আলোকে বলেন, রাজারবাগের কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে পারভেজকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

দুপুরে নেওয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। পরে তাঁকে মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পারভেজ কীভাবে অচেতন হয়েছেন বা তাঁর কাছ থেকে কোনো কিছু খোয়া গেছে কি না, সেটি জানা যায়নি।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন