default-image

রাজধানীতে গতকাল শনিবার রাতে বিমানবন্দর এলাকায় ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী এক কিশোর এবং শ্যামপুরে ময়লার গাড়ির ধাক্কায় বাসের সহকারী নিহত হয়েছেন।

বিমানবন্দর এলাকায় নিহত কিশোরের নাম মো. কিবরিয়া (১৪)। তার গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের ফুলপুরের নওগাঁয়। রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় একটি মোটরসাইকেল গ্যারেজে সহকারীর কাজ করত সে। উত্তরখান বালুর মাঠ এলাকায় পরিবারের সঙ্গে ভাড়া বাসায় থাকত কিবরিয়া। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে সে ছিল দ্বিতীয়।

কিবরিয়ার বড় ভাই ইলিয়াস প্রথম আলোকে বলেন, বন্ধুর মোটরসাইকেলে করে বাড্ডা থেকে উত্তরখানের বাসায় যাওয়ার পথে বিমানবন্দরের ভিআইপি গেট এলাকায় একটি ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয় কিবরিয়া। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন

এদিকে রাজধানীর শ্যামপুরে ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নিহত যুবকের নাম মো. কাবুল (২৬)। তাঁর গ্রামের বাড়ি বরিশালে। রাজধানীতে দোলাইরপাড় এলাকায় থাকতেন তিনি।
শ্যামপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শমরেশ কুমার দাস বলেন, মুরাদপুর জনতা আয়রন মার্কেটের সামনে রাস্তা পারাপারের সময় রাস্তায় ময়লাবাহী গাড়ির ধাক্কায় গুরুতর আহত হন কাবুল। উদ্ধারের পর ঢামেক হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ ফাঁড়ির পুলিশ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, দুজনের মৃতদেহই ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন