বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শাকিলের ভাষ্যমতে, রাকিব স্থানীয় একটি জুতার দোকানের বিক্রয়কর্মী। গত বুধবার আলম মার্কেট এলাকায় এক শিশুকে একজন রিকশাচালক ধাক্কা দেন। এ সময় রিকশাচালকের পক্ষ নেয় রাকিব। এ সময় রাব্বির সঙ্গে তার তর্ক হয়। বৃহস্পতিবার রাতে বন্ধুদের সঙ্গে কক্সবাজারের উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হন রাকিব ও তিনি (শাকিল)। আলম মার্কেট এলাকায় এলে রাকিবকে ছুরিকাঘাত করেন রাব্বি। তখন রাব্বির সঙ্গে আরও কয়েকজন ছিল।

ওই ঘটনায় শাকিল কদমতলী থানায় রাব্বিসহ নয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলায় রাব্বির ভাই, বাবা, ফুফু, চাচাতো ভাই ও দুই বন্ধুকে আসামি করা হয়েছে।
কদমতলী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আনিসুজ্জামান প্রথম আলোকে বলেন, বুধবার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাকিব ও রাব্বির মধ্যে কথা–কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে রাকিবের পেটে ও বুকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, রাকিব কিশোরগঞ্জের গাইটাল এলাকার মোহাম্মদ কামাল হোসেনের ছেলে। দুই ভাই ও দুই বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন দ্বিতীয়। জুরাইন আলম মার্কেট এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন রাকিব।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন