বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ বুধবার সকালে কামরাঙ্গীরচর থানা–পুলিশ শফিকুলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। তাঁর বাড়ি বগুড়া সদর উপজেলার দশটেকিতে।

হাসপাতালের মর্গে শফিকুলের ছেলে খালিদ হাসান ওরফে মিলু অভিযোগ করেন, তাঁর বাবা হুজুরপাড়ায় রিকশা গ্যারেজ পরিষ্কার করছিলেন। এ সময় রিকশাচালক মোহাম্মদ হোসেন নিজের রিকশা গ্যারেজে রাখতে এসে তাঁর বাবাকে সরে যেতে বলেন। তখন বাবা পাশ দিয়ে যেতে বলেন। এ নিয়ে দুজনের কথা–কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে হোসেন তাঁর বাবাকে পিটিয়ে হত্যা করেন।

এ বিষয়ে কামরাঙ্গীরচর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রবি আহসান প্রথম আলোকে বলেন, গতকাল রাতে খালিদ হাসান তাঁর বাবাকে হত্যার অভিযোগে মোহাম্মদ হোসেনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেছেন। হোসেন পালিয়েছেন। তাঁকে ধরার চেষ্টা চলছে।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন