সদরঘাটের নৌ পুলিশের নিয়ন্ত্রণকক্ষের তথ্যানুযায়ী, সকাল সাড়ে সাতটার দিকে পটুয়াখালীগামী এমভি পূবালী-১২ লঞ্চটি ঘাটে ভিড়লে এতে ওঠার জন্য যাত্রীদের মধ্যে হুড়োহুড়ি লেগে যায়। এ সময় লঞ্চ ও পন্টুনের মাঝে চাপা খেয়ে শাহজালালের বাঁ পা হাঁটুর নিচ থেকে প্রায় আলাদা হয়ে যায়। আর কবির হোসেনের ডান পা হাঁটুর নিচ থেকে ভেঙে যায়।

পরে দুজনকে উদ্ধার করে দ্রুত মিটফোর্ড হাসপাতালে পাঠানো হয়।
এদিকে রাতে আহত দুজনের স্বজনদের বেশ কয়েকবার ফোন করা হলেও কেউ ধরেননি।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন