default-image

‘শিশু বক্তা’ হিসেবে পরিচিত মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানীকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সাত দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছেন আদালত।
পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন।

আদালত সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, মতিঝিল থানায় করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় রফিকুল ইসলামকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ। ভার্চ্যুয়ালি উভয় পক্ষের শুনানি নিয়ে আদালত রফিকুল ইসলামকে সাত দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন।

বিজ্ঞাপন

৮ এপ্রিল রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে রাজধানীর মতিঝিল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়। আদনান শান্ত নামের এক ব্যক্তি বাদী হয়ে ওই মামলা করেন।
মতিঝিল থানার পুলিশ জানায়, রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে করা মামলায় বলা হয়, ‘শিশু বক্তা হিসেবে’ পরিচিত রফিকুল ইসলাম ইউটিউব ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে মানহানিকর বক্তব্য দিয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তা শেয়ার হওয়ায় তাঁদের ভাবমূর্তি ও সুনাম ক্ষুণ্ন হয়েছে।

৭ এপ্রিল নেত্রকোনার নিজ বাসা থেকে রফিকুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব।
গাজীপুরেও রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়।
এ ছাড়া গতকাল বুধবার মতিঝিল থানায় আরেকটি মামলায় রফিকুল ইসলামকে চার দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন ঢাকার সিএমএম আদালত।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন