তবে আহত যাত্রীরা নৌ থানায় লঞ্চের কর্মচারীদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেননি।

বেলা সাড়ে তিনটার দিকে পুলিশের কাছে থাকা দুই যাত্রীর মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে সেগুলো বন্ধ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে জানতে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের ঢাকা নদীবন্দর কর্মকর্তা আলমগীর কবীর প্রথম আলোকে বলেন, পরিবহন পরিদর্শকেরা ঘটনার একটি প্রতিবেদন বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান বরাবর পাঠাবেন। সংশ্লিষ্ট দপ্তর লঞ্চটির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে।

যাত্রীবান্ধব সেবা দিতে লঞ্চের কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিতে বিভিন্ন সময় মালিকদের নির্দেশনা দেওয়া হলেও তা কোনো মালিকই মানেন না বলে দাবি করেন বন্দর কর্মকর্তা।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন