default-image

বর্তমান সরকারের ভুলনীতি ও অন্যায় আচরণ দেশকে ভুল পথে নিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, সরকার কথা বলতে দেয় না, আলোচনা করতে দেয় না, সত্য-অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের জেল জুলুম করে।

রাজধানীতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আজ সোমবার এক বিক্ষোভ সমাবেশে জাফরুল্লাহ চৌধুরী এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশের সভাপতি সাংবাদিক রুহুল আমিন গাজীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এই কর্মসূচির আয়োজন করে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক অ্যাসোসিয়েশন (বামসাএ)।

বিজ্ঞাপন

জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘...কথায় কথায় জেল-জুলুম করে। এখন ভেবে দেখুন এগুলো কারা করছে। করছে সরকার। কবিদের ধরা হচ্ছে, আলোকশিল্পীদের ধরা হচ্ছে।’ সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, সাংবাদিক রুহুল আমিন গাজীকে ধরা হলো। তাঁকে এখনই মুক্তি দিন।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে যাঁদের আটক করা হয়েছে, তাঁদের মুক্তির দাবি জানান জাফরুল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেন, জেল-জুলুম করে, অন্যায় আচরণ করে কেউ টিকে থাকতে পারবে না। যাদের ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে ধরা হয়েছে তাদের সবাইকে আজই মুক্তি দিন।

সমাবেশের একপর্যায়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন জাফরুল্লাহ চৌধুরী। অসুস্থতা নিয়েই চেয়ারে বসে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন। বক্তব্য শেষে জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বিএফইউজের একাংশের প্রধান উপদেষ্টা শওকত মাহমুদ বলেন, অবস্থা এমন দাঁড়িয়েছে, সাধারণ মানুষও এখন কথা বলে না। তিনি অভিযোগ করেন, দেশে ভিন্নমতের দমনকে রাষ্ট্রীয় নীতি হিসেবে নেওয়া হয়েছে। বহু শিক্ষক, সাংবাদিক, শিক্ষার্থী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছেন।

বামসাএ-এর চেয়ারম্যান সাকোয়াত হোসেন ইবনে মঈন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন বিএফইউজের একাংশের মহাসচিব এম আবদুল্লাহ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) একাংশের সভাপতি কাদের গনি চৌধুরী, ডিইউজের একাংশের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0