বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারা বলেন, দেড় বছর পর আজ স্কুল-কলেজ খুলে যাওয়ায় নগরীর সড়কগুলোতে গাড়ির চাপও বেড়ে যায়। স্কুল-কলেজসংলগ্ন সড়কেও যানজট তৈরি হয়। তবে যানজট নিরসনে মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারা সচেষ্ট রয়েছেন।

ডিএমপির রমনা জোনের সহকারী কমিশনার মো. রেফাতুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, রমনা এলাকায় রয়েছে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজসহ অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। সকাল থেকে অভিভাবকেরা তাঁদের সন্তান নিয়ে স্কুলে আসেন। সড়কে গাড়ির চাপও বেড়ে গেছে। এতে সাময়িক যানজট তৈরি হয়। তবে যানজট নিরসনে ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারা সঙ্গে সঙ্গে পদক্ষেপ নেন। এতে রমনায় যানজটও ধীরে ধীরে কমে আসে।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা ধরা পড়ে। এরপর ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ হয়ে যায়। দেড় বছর পর আজ আবার স্কুল-কলেজসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে গেছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো আবার শিক্ষার্থীদের পদচারণে মুখর হয়ে উঠেছে।

default-image

পুরোনো রূপে ঢাকার সড়ক

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, পুরান ঢাকার দয়াগঞ্জ, হানিফ উড়াল সড়ক, পল্টন, মগবাজার, নিউমার্কেটসহ অন্যান্য সড়কেও যানজট দেখা যায়। অবশ্য স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের নির্বিঘ্নে চলাচলে নানাভাবে সহায়তা করেন ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারা।
ডিএমপির ওয়ারী জোনের সহকারী কমিশনার বিপ্লব কুমার রায় প্রথম আলোকে বলেন, দেড় বছর পর স্কুল–কলেজ খুলে যাওয়ায় সড়কে যান চলাচল বেড়ে গেছে। এতে কোনো কোনো সড়কে যানজটও তৈরি হয়। তবে শিক্ষার্থীরা যাতে নির্বিঘ্নে স্কুল–কলেজে যেতে পারে, সে জন্য ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারা নানাভাবে তাদের সহায়তা করেন।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন