ছাত্রীর বাবা কাজল ডোমেনিক মল্লিক প্রথম আলোকে বলেন, ২০১৯ সাল থেকে তাঁর মেয়ে দুরারোগ্য রোগে ভুগছিল। এ জন্য তাঁর মেয়ের জীবন অনিশ্চয়তার মধ্যে ছিল।

ছাত্রীর মৃত্যুকে খুবই দুঃখের বিষয় উল্লেখ করে হলিক্রসের সহকারী প্রধান শিক্ষক সিস্টার কল্পনা প্রথম আলোকে বলেন, ছাত্রীটি অসুস্থ ছিল। তার বাবা-মাও জানেন, এই রোগ থেকে ভালো হওয়া সম্ভব নয়। আজ সকালে অ্যাসেম্বলি চলার সময় সে অসুস্থ হয়ে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে কলেজ সংলগ্ন একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে ছাত্রীটিকে সুস্থ করার জন্য চিকিৎসকেরাও চেষ্টা করেছিলেন। কিছুক্ষণের মধ্যে ছাত্রীটির বাবা-মাও চলে আসেন। তাঁর বাবা-মার সামনেই চিকিৎসক ছাত্রীকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবদুল মজিদ বলেন, প্রাথমিকভাবে তাঁরা যতটুকু জেনেছেন মেয়েটি আগে থেকেই অসুস্থ ছিল। কলেজ থেকে জানানো হয়েছে ভারত থেকে মেয়েটিকে চিকিৎসাও করানো হয়েছিল। ঘটনাস্থলে একজন মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে পাঠানো হয়েছে।

খবর পেয়ে পুলিশ হলিক্রস কলেজে যায়।তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অপূর্ব হাসান প্রথম আলোকে বলেন, সেখানে গিয়ে তাঁরা জানতে পারেন ছাত্রীটি দুরারোগ্য রোগে ভুগছিল।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন