বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এবার হাবের নির্বাচনে এম শাহাদাত হোসাইনের নেতৃত্বে ‘হাব সম্মিলিত ফোরাম’ ও আবদুস সোবহান ভূঁইয়ার নেতৃত্বে ‘হাব গণতান্ত্রিক ঐক্য ফ্রন্ট’ নামে দুটি প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। হাবের ২৭টি কেন্দ্রীয় সদস্যপদ, ঢাকায় ১৩টি, চট্টগ্রাম ও সিলেটে ৭টি করে আঞ্চলিক কমিটির সদস্য পদেও নির্বাচন করা হয়। কেন্দ্রীয় ও আঞ্চলিক সব কটি পদেই সম্মিলিত ফোরামের প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। তবে চট্টগ্রামের সাতটি আঞ্চলিক পদের ৭ নম্বর সদস্যপদে দুই প্যানেলের দুজন প্রার্থী সমান ভোট পেয়েছেন।

হাবের নবনির্বাচিত সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন প্রথম আলোকে বলেন, চট্টগ্রামের সদস্য পদে সমান ভোট পাওয়া গণতান্ত্রিক ঐক্য ফ্রন্ট প্যানেলের প্রার্থী কমিটিতে না থাকার ঘোষণা দিয়েছেন। ফলে হাবের কেন্দ্রীয় ও তিনটি আঞ্চলিক কমিটিতে সম্মিলিত ফোরামের প্রার্থীরা সব কটি পদে জয়ী হয়েছেন। হাবের নিয়ম অনুযায়ী, বিজয়ীদের মধ্য থেকে একজন মহাসচিব নির্বাচিত হবেন।

অবশ্য হাবের এবারের নির্বাচন নিয়ে দুটি পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলছিল। আবদুস সোবহান ভূঁইয়ার নেতৃত্বাধীন প্যানেল হাবের ভোটার তালিকা ত্রুটিপূর্ণ দাবি করে রিট করলে ১৫ ডিসেম্বর নির্বাচনের ওপর স্থগিতাদেশ দেয় আদালত। পরে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার হলে গতকাল নির্বাচন হয়।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন