বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ফিলিং স্টেশন এবং সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো পরিবহন খরচ বাবদ আগের চেয়ে বেশি টাকা দিচ্ছে না। ফলে নিয়মিত লোকসান দিয়ে ট্যাংকলরিগুলোকে জ্বালানি পরিবহন করতে হচ্ছে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে বারবার চিঠি দেওয়ার পরেও ভাড়া বাড়ানো হয়নি।

৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে পরিবহন ভাড়া না বাড়ালে যে অচলাবস্থা সৃষ্টি হবে, তার জন্য জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্টরা দায়ী থাকবেন বলে চিঠিতে বলা হয়েছে।

গত ৯ নভেম্বর ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের চেয়ারম্যানকে চিঠি দেয় সংগঠনটি। এরপর বিষয়টি নিয়ে একটি বৈঠক হলেও এখন পর্যন্ত ভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন ট্যাংকলরি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সৈয়দ সাজ্জাদুল করিম।

রাজধানী থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন