বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দেশে প্রথম করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল গত বছরের ৮ মার্চ। এ ভাইরাসে দেশে প্রথম মৃত্যুর খবর আসে ১৮ মার্চ। এরপর কোনো দিন দু-একজনের, আবার কোনো কোনো দিন কারও মৃত্যু হয়নি পরের দুই সপ্তাহে।

গত বছরের ৩ এপ্রিল করোনায় কারও মৃত্যু হয়নি। পরদিন মৃত্যু হয় দুজনের। এর পর থেকে করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে। সর্বশেষ গত ২০ নভেম্বর কারও মৃত্যু হয়নি। সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে চলতি বছরের মাঝামাঝিতে। দেশে করোনার ডেলটা ধরনের দাপটের মধ্যে গত আগস্টের দুদিন করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু সর্বোচ্চ ২৬৪ জনে পৌঁছায়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ২১ হাজার ৪৯৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার ১ দশমিক ২২ শতাংশ। আগের দিন এ হার ছিল ১ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

গত বছরের মার্চে দেশে প্রথম করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। এর পর থেকে এখন পর্যন্ত দেশে মোট করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৭৮ হাজার ৫৫০। তাঁদের মধ্যে মারা গেছেন ২৮ হাজার ১৬ জন, সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ৪৩ হাজার ৪৯১ জন। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় ২৮৭ জন সুস্থ হয়েছেন।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন