default-image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় (আজ সকাল আটটা পর্যন্ত) নতুন করোনা রোগী শনাক্ত ও মৃত্যু আরও কমেছে। এ সময় ১ হাজার ২৮৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। একই সময়ে মৃত্যু হয় ১৩ জনের।

গতকাল শুক্রবার ১ হাজার ৪৬৯ জন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। একই সময়ে করোনায় প্রাণ হারান ১৫ জন।

আজ শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১১ হাজার ৪১৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার সংখ্যা বিবেচনায় রোগী শনাক্তের হার ১১ দশমিক ২৯ শতাংশ। গতকালের তুলনায় আজ নতুন রোগীর সংখ্যা কমেছে।

বিজ্ঞাপন

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৫৪১ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৩৬ হাজার ৫৬৮। এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছে ৪ লাখ ১৮ হাজার ৭৬৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় যে ১৩ জন মারা গেছেন, তাঁদের মধ্যে ১১জন পুরুষ ও ২ জন নারী। সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন।

এ নিয়ে দেশে করোনা শনাক্ত রোগীর মোট সংখ্যা ৪ লাখ ১৮ হাজার ৭৬৪ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে মারা গেছেন ৬ হাজার ৪৯ জন।

দেশে করোনায় সংক্রমিত প্রথম রোগী শনাক্তের ঘোষণা আসে চলতি বছরের ৮ মার্চ। প্রথম মৃত্যুর তথ্য জানানো হয় ১৮ মার্চ।

জনস্বাস্থ্যবিদেরা বলছেন, দেশের করোনা পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রণে আসেনি। এর মধ্যে সরকার আশঙ্কা করছে, শীতে আবার সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে। টিকা আসার আগপর্যন্ত নতুন এই ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধের মূল উপায় হলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, মাস্ক পরা, কিছু সময় পরপর সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়া, জনসমাগম এড়িয়ে চলা ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা। কিন্তু এই স্বাস্থ্যবিধিগুলো মেনে চলার ক্ষেত্রে ঢিলেঢালা ভাব দেখা যাচ্ছে। এতে সংক্রমণ আবার বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা আছে।

মন্তব্য পড়ুন 0