বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কেন্দ্রগুলো হলো চট্টগ্রাম গ্রামার স্কুলের (সিজিএস) চট্টেশ্বরী রোডের ক্যাম্পাস, লালখান বাজারের মরিস ব্রাউন ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ও আকবরশাহ এলাকার মীর্জা ইস্পাহানি স্কুল। টিকা কারা পাবেন, তা নির্ধারণের দায়িত্বে রয়েছে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়। আর টিকা ব্যবস্থাপনা করে চলেছে সিভিল সার্জন কার্যালয়।
চট্টগ্রাম গ্রামার স্কুলে টিকা নেন চট্টগ্রাম কলেজের শিক্ষার্থীরা।

default-image

মাহমুদুল হাসান নামের এক শিক্ষার্থী প্রথম ডোজ টিকা নিয়ে জানান, তাঁর এখন নিজেকে অনেক নিরাপদ মনে হচ্ছে। একই কলেজের মৌমিতা কর বলেন, ‘টিকার জন্য অপেক্ষায় ছিলাম। এখন টিকা পেয়ে খুশি লাগছে। সামনে এইচএসসি পরীক্ষা। তাই টিকাটা খুব দরকার ছিল।’

মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এস এম জিয়াউল হায়দার প্রথম আলোকে বলেন, শুধু এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের প্রথম ধাপে টিকা দেওয়া হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে সব পরীক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হবে।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন