default-image

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীকে টিকাদানের মধ্য দিয়ে আজ রোববার চট্টগ্রামে করোনার টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে।

আজ সকাল সাড়ে ১০টায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। উপমন্ত্রীর পর হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ূন কবির, সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি, চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপমহাপুলিশ পরিদর্শক (ডিআইজি) আনোয়ার হোসেনসহ বিভিন্ন ব্যক্তি টিকা নেন।

বিজ্ঞাপন

টিকা নেওয়ার পর তাঁদের আধা ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। এর পর উপমন্ত্রী বক্তব্য দেন। মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, টিকা নেওয়ার পর তাঁর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়নি। তিনি আরও বলেন, ‘যেকোনো ওষুধের কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকতে পারে। এ ক্ষেত্রেও সামান্য কিছু কারও কারও থাকতে পারে। তবে আমার কোনো খারাপ কিছু লাগছে না।’

টিকা নিয়ে কিছু অপপ্রচার আছে উল্লেখ করে উপমন্ত্রী বলেন, টিকা দিতে সবাইকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। সরকার তা করে যাচ্ছে। নিবন্ধনসংক্রান্ত বিষয়টা আরও সহজ করা হবে আস্তে আস্তে। আপাতত পঞ্চান্নোর্ধ্ব ব্যক্তিদের অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। পরে অন্যান্য বয়সের লোকদের দেওয়া হবে।

করোনাভাইরাস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন